ঝোরপাড়া গ্রাম ষোলটাকা ইউনিয়ন

ঝোরপাড়া গ্রাম ষোলটাকা ইউনিয়ন

আমাদের গ্রামের নাম ঝোরপাড়া।জেলা শহর মেহেরপুর থেকে প্রায় ২৭ কি.মি. দূরে এর অবস্থান। আমাদের পশ্চিমে মিনাপাড়া,দক্ষিন-পূর্বে ভোলাডাঙ্গা আর উত্তরে কুমারীডাঙ্গা গ্রাম অবস্থিত।

ঝোর শব্দের অর্থ ছোট জলাশয়,ডোবা,গর্ত বা  পুষ্করিণী। লোকমুখে একথা শোনা যায় যে, ১৭ কি ১৮ শতকে এ গ্রামে প্রথম বসতি স্থাপন করা হয়। তখন এখানে অনেক ঝোর ছিল বলে এর নাম দেওয়া হয় ঝোরপাড়া।বসতি গুলোর মধ্যে মণ্ডল গ্রুপ,মাইলতি গ্রুপ, আনেছদ্দি গ্রুপ, ফরিদ গ্রুপ, হারেজ গ্রুপ অন্যতম।

গ্রামের স্বনামধন্য ব্যক্তিগণের মাঝে,আয়ুব মাস্টার, গঞ্জের আলী মাস্টার, সিরাজ মাস্টার, প্রকৌশলী আবু হেনা মোস্তফা,  মুজিবর রহমান,সেলিম রেজা,মিল্টন, শিমূল, কামরুল হাসান অন্যতম। এছাড়াও আব্দুল হামিদ, নজরুল ইসলাম(কোম্পানি), হাজী হান্নান, রাজ্জাক মাস্টার, তরিকূল ডাক্তার, আশরাফুল ইসলাম, ইনামুল মাস্টার, আব্দুস সালাম, আব্দুল মালেক, দেলোয়ার হোসেন নিজ নিজ কর্মগুণে সুপরিচিত।

 গ্রামের বর্তমান শিক্ষার হার প্রায় ৭০%।

গ্রামে কৃষি কাজের পাশাপাশি অনেকেই নানামুখী পেশায় নিয়জিত।কৃষি উৎপাদিত ফসলের মাঝে ধান,পাট,গম,ভুট্টা,তামাক অন্যতম।এছাড়াও নানা জাতের সবজি আবাদ করা হয়।

বাংলাদেশের সবুজ প্রকৃতির ধারক এর গ্রাম গুলো। আমাদের গ্রাম এর ব্যতিক্রম নয়। গ্রামের চারপাশে সবুজ গাছপালা আর গাছে গাছে বসে পাখির মেলা। ইচ্ছা হলেই বুক ভরে শ্বাস নেওয়া যায় এখানে। তপ্ত দুপুরে গ্রামের দামাল ছেলে ঝাপিয়ে পড়ে গ্রামের পুকুরে। মেতে উঠে উল্লাসে।বিকেল হলেই আয়োজন করে নানান ধরনের সিজনাল খেলাধুলার। কখনো ক্রিকেট তো কখনো ফুটবল  এছাড়াও ডাংগুলি,লাটিম,ঘুড়ি উড়ানো….. তো আছেই