জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি সম্পর্কৃত তথ্য

0
725

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি সম্পর্কৃত তথ্য । অনার্স এডমিশন ২০১৯/২০ সেশনের এডমিশন তারিখ প্রকাশ হয়েছে। আগামী ১ সেপ্টেম্বর ( রবিবার) থেকে এডমিশন কার্যক্রম শুরু হবে এবং এই আবেদন প্রক্রিয়া ১৫ সেপ্টেম্বর ( রবিবার) পর্যন্ত চালু থাকবে। আবেদন করতে ইচ্ছুক পার্থী নিজেই ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি ওয়েবসাইটে আবেদন করতে পারবে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি সম্পর্কৃত তথ্য ।অনলাইনে আবেদনকৃত ফরম অবশ্যই আগামী ১৬ সেপ্টেম্বরের মধ্যে পার্থীর নির্ধারীত কলেজে জমা দিতে হবে। ফরম জমা দেওয়ার সময় ফরম ফি ২৫০ টাকা সহ ফরম টি জমা দিতে হবে। অনার্স ১ম বর্ষের ক্লাস শুরু হবে ১ অক্টোবর থেকে।

আবেদন করার যোগ্যতা এবং শর্তাবলি

আবেদনকারী অবশ্যই ২০১৬/২০১৭ সালে এসএসসি এবং ২০১৮/২০১৯ সালে এইচএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে।

গ্রুপের সর্বনিম্ন জিপিএ

গ্রুপএসএসসি এইচএসসি
মানবিক ২.৫০২.৫০
ব্যাবসা ৩.০০২.৫০
বিজ্ঞান ৩.০০২.৫০

স্টুডেন্ট নির্বাচন প্রক্রিয়া

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে কোন ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয় না। এস এস সি এবং এইচ এস সি এর জিপিএ এর উপর ভিত্তি করে স্টুডেন্ট নির্বাচিত হয়।

প্রতিটি কলেজের জন্য আলাদা মেধা তালিকা তৈরি করে ছাত্র-ছাত্রীদের পছন্দ অনুসারে সাবজেক্ট দেওয়া হয়।

জিপিএ এর মান সমান হলে তাদের মাঝে এসএস সি এবং এইচএসসির মোট মার্কসের ভিত্তিতে সাবজেক্ট দেওয়া হয়।

এসএসসি এবং এইচএসসি ও যদি সমমান মার্কস হলে বয়সের ভিত্তিতে অর্থাৎ যার বয়স কম তাকে অগ্রাধিকার দেওয়া হবে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি সম্পর্কৃত তথ্য । জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্স এডমিশন ২০১৯/২০ সেশনের এডমিশন তারিখ প্রকাশ হয়েছে। আগামী ১ সেপ্টেম্বর ( রবিবার) থেকে এডমিশন কার্যক্রম শুরু হবে এবং এই আবেদন প্রক্রিয়া ১৫ সেপ্টেম্বর ( রবিবার) পর্যন্ত চালু থাকবে। ভর্তি ইচ্ছুক পার্থী নিজেই জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে আবেদন করতে পারবে। অনলাইনে আবেদনকৃত ফরম অবশ্যই আগামী ১৬ সেপ্টেম্বরের মধ্যে পার্থীর নির্ধারীত কলেজে জমা দিতে হবে। ফরম জমা দেওয়ার সময় ফরম ফি ২৫০ টাকা সহ ফরম টি জমা দিতে হবে। অনার্স ১ম বর্ষের ক্লাস শুরু হবে ১ অক্টোবর থেকে।

স্টুডেন্ট নির্বাচন প্রক্রিয়া

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে কোন ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয় না। এস এস সি এবং এইচ এস সি এর জিপিএ এর উপর ভিত্তি করে স্টুডেন্ট নির্বাচিত হয়।

প্রতিটি কলেজের জন্য আলাদা মেধা তালিকা তৈরি করে ছাত্র-ছাত্রীদের পছন্দ অনুসারে সাবজেক্ট দেওয়া হয়।

জিপিএ এর মান সমান হলে তাদের মাঝে এসএস সি এবং এইচএসসির মোট মার্কসের ভিত্তিতে সাবজেক্ট দেওয়া হয়।

এসএসসি এবং এইচএসসি ও যদি সমমান মার্কস হলে বয়সের ভিত্তিতে অর্থাৎ যার বয়স কম তাকে অগ্রাধিকার দেওয়া হবে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া পুরাতন লাইব্রেরি কোথায় আছে দেখে নিন