দোরমুটিয়া গ্রাম কেশবপুর ইউনিয়ন

দোরমুটিয়া গ্রাম কেশবপুর ইউনিয়ন

আমাদের গ্রামের নাম দোরমুটিয়া। গ্রামের নাম কেন দোরমুটিয়া হলো এটার সঠিক ইতিহাস সঠিকভাবে জানা যায়নি। যশোর জেলার অন্তর্ভুক্ত কেশবপুর উপজেলায় অবস্থিত  আমাদের গ্রাম। যশোর জেলার প্রতিষ্ঠাকাল ১৭৮১ সাল। এই কারণে হয়তো গ্রামের ইতিহাস সম্পর্কে বিস্তারিত জানা যায় না। যে প্রজন্ম জানতো তাঁরা অনেক আগেই বিদায় নিয়েছেন। আর গ্রাম বাংলার ইতিহাস চর্চা দিন দিন কালের গর্বে হারিয়ে যাচ্ছে আধুনিকায়নের নাম করে! 

যাইহোক, আমাদের গ্রামটি কেশবপুর ইউনিয়নের (১ নং ইউনিয়ন) ১ নং ওয়ার্ডের অন্তর্ভুক্ত। গ্রামটির পূর্বদিকে রয়েছে ভোগতি নরেন্দ্রপুর গ্রাম, উত্তর দিকের গ্রামের নাম নতুন মূলগ্রাম, পশ্চিম দিকে রয়েছে জাহানপুর গ্রাম, আর দক্ষিণ দিকে রয়েছে বুড়ি ভদ্রা নামের ছোট্ট একটা নদী। নদীর উপারে অর্থাৎ দক্ষিণ দিকে রয়েছে শ্রীরামপুর, বায়সা এবং চালিতাবাড়িয়া গ্রাম। গ্রামের মাঝ বরাবর কেশবপুর-ত্রিমোহিনী-কলারোয়া রোড চলে যাওয়ার গ্রামটা দুইভাগে ভাগ হয়ে গিয়েছে। ফলে একটার নাম হয়েছে বড় দোরমুটিয়া (রোডের দক্ষিণ পাশের অংশ) এবং আরেকটার নাম হয়েছে ছোট দোরমুটিয়া (রাস্তার উত্তর পাশের অংশ)। গ্রামটা বেশ বড় হওয়াতে চেনার সুবিধার্থে এমন নামকরণ।   

 গ্রামের অধিকাংশ মানুষ কৃষিকাজের সাথে জড়িত থাকলেও সরকারি-বেসরকারি চাকুরিজীবীর সংখ্যাও বেশ অনেক। একই সাথে অনেক মানুষ প্রবাসে রয়েছে।

 আমাদের গ্রামে রয়েছে ১ টা প্রাথমিক বিদ্যালয়, ১ টা বালিকা বিদ্যালয়, ১ টা মাধ্যমিক বিদ্যালয় এবং ১ টা মাদ্রাসা। 

আমাদের গ্রামে অধিকাংশ মানুষই ইসলাম ধর্মের। হিন্দু সম্প্রদায়ের ৪/৫ টা ঘর আছে মাত্র।আমাদের গ্রামের মুসলিম-হিন্দুদের সম্পর্কটা অনেক সৌহার্দপূর্ণ। 

গ্রামের নামকরা ব্যক্তিত্বের মধ্যে অন্যতম ছিলেন নাসের সরদার। উনি ছিলেন আমাদের আশেপাশের ২২ গ্রামের মাতব্বর। তাছাড়া আরো অনেক ব্যক্তিবর্গ আছেন। 

আমাদের গ্রাম তথাকথিত সুন্দরের মত না, সত্যিকার অর্থেই সুন্দর। যাতায়াত, পরিবেশ, প্রাকৃতিক সৌন্দর্য সব মিলিয়ে মনে গেঁথে থাকার মত।  

ধন্যবান্তে,

মাসুম বিল্লাহ

ডিপার্টমেন্ট অব সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং, EUB  

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here