ভক্তের বাড়ু গ্রাম বেংহারি বনগ্রাম ইউনিয়ন

hard logo

ভক্তের বাড়ু গ্রাম বেংহারি বনগ্রাম ইউনিয়ন

গ্রামের কথা বলতে গেলে একটি কথায় মনে পরে,

“শান্তি যদি পেতে চাও

মায়ের কোলে ফিরে যাও”

আমার গ্রাম আমার মা,

গ্রামের নাম ভক্তের বাড়ি,আবার অনেকের কাছে কিসমত ভক্তের বাড়ি নামে পরিচিত। গ্রামটি অত্র ৩নং বেংহারি বনগ্রাম ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ড এর ৫নং এবং ৬নং ব্লকে অবস্থিত। গ্রামের উত্তরে মানিক পীর,দক্ষিণে তেপুকুরিয়া,পূর্বে টেকরা পাড়া ও পশ্চিমে ডাবরভাংঙ্গা গ্রাম অবস্থিত। গ্রামটি যেমন নিরিবিলি, এখানকার মানুষ গুলোও তেমন আনন্দ প্রিয়,  শান্তিময় এবং উদার মনের। এ গ্রামে চাঁরটি মসজিদ ও একটি দাখিল মাদ্রাসা অবস্থিত। এখানে দুটি ধর্মের মানুষ বসবাস করে, হিন্দু ও মুসলিম তাদের আচরণ দেখে মনে হয় তারা আপন মায়ের পেটের ভাই। এ গ্রামের উপর দিয়ে একটি ছোট নদী প্রবাহিত হয়ে করোতোয়া নদীতে পৌঁছেছে। এখানে প্রায় সবাই কৃষি কাজের উপর নির্ভরশীল।

উল্লেখযোগ্য ফসল যেমন-ধান,গম,পাট,আলু,বাদাম,মরিচ,ভুট্টা,চাপাতা আরো অনেক কিছু চাষ করা হয়। আগে সবাই গরু মহিষ দিয়ে চাষাবাদের কাজ করতো। কালের বিবর্তনে এখন আর গরু মহিষ দিয়ে হালচাষ করতে দেখা যায় না।  এই  গ্রামেই জন্ম গ্রহণ করেছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রহমান, গত বছর করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে পরপারে চরে গেছেন।এবং   মুন্সি সিরাজুল ইসলাম ইমাম যিনি একাধারে   বিগত ২৬ বছর বেংহারি ঈদগাহ মাঠের ইমামতি করেছিলেন।আরো বেশ কয়েক জন মুক্তিযোদ্ধা এ গ্রামেই জন্ম গ্রহন করেছিলেন।